নস্টালজিয়া

# নস্টালজিয়া

… আজ সোমা ভীষণ নস্টালজিয়ায় ভুগছে!ভীষণ!
চোখের সামনে ভেসে উঠলো…ডাইনিং টেবিলের চেয়ারে সে, বাবু, শোভা, বাবা,মা একসাথে বসে খাচ্ছে!
“বাচ্চারা খেতে এসো”
“আসছি বাবা”
“আমার হয়েছে যত জ্বালা একজন এটা খাবে না, আরেকজন সেটা খাবে না!”
“উফ্ মা! তরকারিটা এত্ত ঝাল!”
“আল্লাহ্ জানিস আজকে স্কুলে সবাইকে দাঁড় করিয়ে রেখেছিলো “….

উফ্! কি যে হলো! আজ সোমা ভীষণ নস্টালজিয়ায় ভুগছে! ভীষণ!
সময়ের পরিক্রমায় মানুষের সাথে সাথে ডাইনিং টেবিলটারও জীর্ণশীর্ণ অবস্থা! ঘুঁণে খেয়ে ফেলেছে কাঠগুলো! চেয়ারগুলো যেনো একরাশ শূণ্যতার শোকসভা করছে!
কোথাও কেউ নেই! ব্যাস্ততা সরিয়েছে ভাই বোনকে আর বার্ধক্য বাবা মা কে! তাদের মুখরিত বাড়িটি আজ সময়ের হাওয়া বদলে হয়েছে পরিত্যাক্ত বাড়ি!
সোমা ভাবে, জীবনরেস এ দৌড়াতে গিয়ে কত পুরাতনকে যে ছেড়ে দিতে হয়েছে! কখনো ছেড়েছে প্রিয় স্কুল ড্রেস, প্রিয় ব্যাডমিন্টন, যত্নে রাখা প্রিয় কোন চিঠি কিংবা কখনো আস্ত একটা মানুষকেই!

বাহিরে ঝড়ো হাওয়া! বর্ষার প্রথম বাদল! ঝড়ছে অবিরত ! দূরে কোথায় যেনো বাজছে, ” শ্রাবণের ধারার মতো পড়ুক, পড়ুক ঝরে ……”

টুপ করে সোমার চোখ দিয়ে একফোটা জল গড়িয়ে পড়লো ! আজ সোমা ভীষণ নস্টালজিয়ায় ভুগছে! ভীষণ!

~ ঈশাতির রাদিয়া

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top